আপনি কি গর্ভবতী? জেনে নিন গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণ সমুহ

 আপনি কি গর্ভবতী? জেনে নিন গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণ সমুহ।

আগের পোস্টে আমরা জেনে ছিলাম “ আপনি গর্ভধারনের জন্য প্রস্তুত কিনা?” এখন আমরা গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণ সর্ম্পকে জানবো।


ঋতুস্রাব না হওয়াঃ

নিয়মিত সময়ে ঋতুস্রাব না হওয়া অর্থাৎ যখন ঋতুস্রাব হওয়ার কথা তখন না হওয়া

রক্তক্ষরনঃ

নিয়মিত মাসিক শেষ হওয়ার পর তুলনামূলক হালকা রক্তক্ষরন হতে পারি।সাধারনত এটা ৭/৮ দিন স্থায়ী হয়।

মুখের স্বাদ পরির্বতনঃ

গর্ভধারনের অর্থ হল আপনার শরীরে আরো একটি নতুন প্রাণের সঞ্চার হয়েছে। সেই নতুন প্রাণের জন্য বিভিন্ন প্রকার তরল ও হরমোন উৎপন্ন হচ্ছে। ফলে আপনি খেতে পারছেননা অথবা খাবার রুচি কমে গেছে। এমনও হতে পারে বিশেষ কিছু খাদ্য যেমন টক জাতীয় খাবার খেতে চাইছেন । আবার এমনও হয় যে, যা কিছুই খাচ্ছেন তা বমি করে ফেলছেন। 

ক্লান্তিবোধঃ

আগেই বল হয়েছে যে, আপনার শরীরে আরো একটি নতুন প্রাণের সঞ্চার হয়েছে।আর তাই আপনার শরীরকে বাড়তি পরীশ্রম করতে হচ্ছে। অতিরিক্ত পরিশ্রমের ফলে আপনি ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন।

মাথাব্যাথাঃ

শরীরের বাড়তি পরিশ্রমের ফলে আপনি যেমন ক্লান্ত হচ্ছেন তার সাথে পাল্লা দিয়ে আপনার মাথা ব্যাথাও করছে। এটা প্রায় ৯৯% নারীর ক্ষেত্রেই ঘটতে দেখা যায়।

আবেগ পরিবর্তনঃ

মেজাজটা খিঁটখিঁটে হয়ে গেছে, অল্পতেই রাগ করছেন, অবসাদবোধ করছেন, কিছুই ভালো লাগছেনা, অভিমান করছেন, আহলাদিত হচ্ছেন,শিশুদের বোঝার চেষ্টা করছেন। এগুলো গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণগুলোর মধ্যে অন্যতম।

মল-মূত্র সংক্রান্ত সমস্যাঃ

আপনার শরীরে তরল পর্দাথ ও হরমোনের কার্যকারীতা বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে আপনার শরীরে পানির চাহিদা বেড়ে গেছে। আপনি ঘন ঘন প্রস্রাব করছেন ও কষ্টকাঠিন্যের ফলে মলত্যাগে সমস্যা হচ্ছে।

দুঃচিন্তা-

ভয় আপনাকে জেকে বসেছে। ভয়ঙ্কর সব স্বপ্ন দেখছেন,দুঃচিন্তা করছেন, স্বামী-সংসার নিয়ে অতিরিক্ত টেনশন করছেন ইত্যাদি গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণ।

আশা করছি গর্ভধারনের প্রাথমিক লক্ষণ সমুহ বুঝতে পেরেছেন। আর এখন আপনাকে গর্ভধারন পরীক্ষা বা প্রেগন্যান্সি টেস্ট করাতে হবে। আমাদের পরবর্তী পোস্টটি অবশ্যই আপনার উপকারে আসবে।

সর্ম্পকিতঃ আপনি কি গর্ভধারনের জন্য প্রস্তুত ? গর্ভধারনের ৩ মাসে যে কাজগুলো ভুলেও করবেন না,আপনি গর্ভধারনের জন্য প্রস্তুত কি না

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post